ডেট লাইন অক্টোবর-র‌্যাব ডিজি

সুন্দরবনের আত্মসর্মপনকারী জলদস্যুদের পুর্নবাসনের জন্য ‘সুন্দরবনের হাসি ’ নামের প্রকল্পের উদ্বোধন করেছেন র‌্যাব ডিজি বেনজীর আহমেদ। এ উপলক্ষে বরিশাল র‌্যাব-৮ কার্যালয়ে মঙ্গলবার দুপুরে আয়োজিত অনুষ্ঠানে র‌্যাব ডিজি আগামী অক্টোবর মাস পর্যন্ত আত্মসর্মপনের শেষ সময় জানিয়ে বলেন,আমরা আত্মসর্মপনের জন্য অন্তকাল অপেক্ষা করবো না।

সুন্দরবনের আত্মসর্মপনকারী জলদস্যুদের পুর্নবাসনের জন্য ‘সুন্দরবনের হাসি ’ প্রকল্পের উদ্বোধন করছেন র‌্যাব ডিজি বেনজীর আহমেদ-বরিশাল নিউজ

উল্লেখ্য,বরিশাল র‌্যাব-৮ গত ২৪মাস ধরে সুন্দরবনসহ উপকুলীয় এলাকায় জলদস্যু ও বনদস্যুদের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালিত করছে। এই সময়ে ২৩ বাহিনীর ২৪৩জন জলদস্যু আত্মসর্মপন করে। এছাড়া ৩৭৯টি আগ্নেয়াস্ত্রসহ বিপুল গোলাবারুদ জমা দেয় তারা।
এসব জলদস্যু ও তাদের পরিবারের পাঁচ শতাধিক সদস্যকে সমাজের মূলস্রোতধারায় ফিরিয়ে আনার জন্য কারিগরী প্রশিক্ষণসহ চাকুরীর ব্যবস্থা করছে র‌্যাব-৮।

আত্মসর্মপনকারী জলদস্যুদের জন্য পুর্নবাসন প্রকল্প ‘সুন্দরবনের হাসি’ আওতায় প্রদানকরা সেলাই মেশিনে কর্মরত সদস্যদের প্রশিক্ষণ কার্যক্রম পরিদর্শন করছেন র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ-বরিশাল নিউজ


র‌্যাব ৮ জানায়,আত্মসর্মপনকারী ২০ পরিবারে ১৯৪ জন স্ত্রী,১৮৫ মেয়ে ও ১৮৬ জন ছেলে সন্তান রয়েছে । এদের মধ্যে ২৩ জন সেলাই,২৪ জন ড্রাইভিং,একজন বুটিক,তিনজন কম্পিউটার প্রশিক্ষণ,১০জন লেখাপড়া ও শিক্ষাগত যোগ্যতা অনুযায়ী চাকরি করার এবং চারজন চিকিৎসার জন্য আর্থিক সহায়তা চেয়েছেন। এদের মধ্যে ২০টি পরিবারকে সেলাই মেশিন প্রদান করা হয়। পরে সব পরিবারের মধ্যে সেলাই মেসিন বিতরণ করা হবে জানায় তারা। এছাড়াও চিকিৎসা ও শিক্ষা সহায়তা হিসাবে কয়েকটি পরিবারকে আর্থিক সহায়তা দেওয়া হয়।

আত্মসর্মপনকারী জলদস্যু পরিবারের সদস্যদের মধ্যে ঈদ সামগ্রী বিতরণ করছেন র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ-বরিশাল নিউজ

পরে তিনি আত্মসর্মপনকারী জলদস্যু সকল পরিবারের সদস্যদের মধ্যে ঈদ উপহার প্রদান করেন।
বরিশাল নিউজ/এমএম হাসান

Comments

comments

২০১৮-০৬-১২T১৫:৪১:১০+০০:০০ মঙ্গলবার, জুন ১২, ২০১৮ ৩:০৩ অপরাহ্ণ|